যে কারণে ফেসবুকে হঠাৎ আলোচনায় ডা. এজাজ

নীলফামারীনিউজ, ডেস্ক রিপোর্ট- টিভি পর্দায় তুমুল জনপ্রিয় একটি মুখ ডাক্তারএজাজুল ইসলাম। এজাজুল ইসলাম মানেই বিনোদনে ঠাসা নাটক। অভিনয়ের পাশাপাশি চিকিৎসক হিসাবেও তিনি যথেষ্ট সুনাম অর্জন করেছেন।

গরিবের ডাক্তার হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেতা। বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিউক্লিয়ার মেডিসিন বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

নাটকের মাধ্যমে সারা বছর আলোচনায় থাকলেও সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় আবার আলোচনায় এসেছেন ডাক্তার এজাজ।

সোমবার (২২ এপ্রিল) এভারগ্রিন বাংলাদেশ নামে একটি ফেসবুক পেজে ডাক্তার এজাজের প্রশংসায় দেয়া একটি পোস্টের পর তাকে নিয়ে আলোচনায় মুখর হয়ে ওঠে ফেসবুক।

আব্দুল্লাহিল কাফী নামে এক ব্যক্তি ওই ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘আমাদের দেশে এখনো ভালো এবং মানবিকতাসম্পন্ন ডাক্তার আছেন। তিনি হলেন বিশিষ্ট অভিনেতা ডা. এজাজুজ ইসলাম। এই ধরনের ডাক্তারের কাছে গেলেই রোগ ৫০% ভালো হয়ে যায়। রেস্পেক্ট স্যার।’

তবে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় এসেছে চিকিৎসক এজাজুল ইসলামের ফি এর বিষয়টি। পোস্টকৃত ছবিতে দেখা গেছে, চিকিৎসার জন্য ৩০০ টাকা নিয়ে থাকেন ডা. এজাজ। রোগী পুরনো হলে ফি ২০০ টাকা। আর গরীবদের বেলায় ফিসের বিষয়টি শিথিলযোগ্য।

ফেসবুকে আপলোডের পরপরই অনেকেই শেয়ার করেছেন এই পোস্টটি। অনেকেই তার প্রশংসায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

ফেসবুকে হঠাৎ ভাইরাল হওয়ার বিষয়ে মঙ্গলবার দুপুরে ডা. এজাজ বলেন, ‘রোগীরা ভালোবেসে এমন পোস্ট দিয়ে বসেন। গত রাতে টাঙ্গাইল থেকে আসা রোগী চেম্বারের ছবি তুলে নিয়ে গেছেন। তিনিই হয়ত এটা ফেসবুকে ছড়িয়েছেন।’

গাজীপুরে ব্যক্তিগত চেম্বারে প্রতিদিন সন্ধ্যায় রোগী দেখেন বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘রোগীদের সুস্থ করে তুলতে সাধ্য মতো চেষ্টা করি। বাকিটা আল্লাহর ইচ্ছা।’

এ সময় অভিনয় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আসছে ঈদের জন্য ‘ধামাকা অফার’ ও ‘ভাড়াটিয়া’ নামের মাসুদ সেজানের পরিচালনায় দুটি ৭ পর্বের নাটকে অভিনয় করছি।’

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’