হায়দরাবাদ একাদশে সুযোগ না পাওয়ার কারণ জানালেন সাকিব (ভিডিও)

নীলফামারীনিউজ, ডেস্ক রিপোর্ট- আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের দুইবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পিছনে গুরুত্বপুর্ণ ভূমিকা ছিল সাকিব আল হাসানের। টানা সাত আসর পর শাহরুখ খানের দল গত বছল ছেড়ে দিলে দুই কোটি রুপিতে এই বাংলাদেশি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে কিনে নিয়েছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। কমলা জার্সিতে গেল বছর দুর্দান্ত কাটলেও এবার একাদশে সুযোগ মিলছে না মোটেও।

টানা আট ম্যাচ বসে থাকার পর মঙ্গলবার চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে খেলার সুযোগ পান সাকিব আল হাসান। এদিন ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। সাকিব জানালেন কেন তিনি হায়দরাবাদ একাদশে নিয়মিত নন।

এবারের আইপিএলে একাধিক বিদেশি তারকা নিয়ে দল সাজিয়েছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। মাত্র চারজন বিদেশি খেলোয়াড় একাদশে রাখার নিয়ম থাকায় সেভাবে খেলার সুযোগ পাননি বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ফর্মের তুঙ্গে থাকায় হায়দরাবাদের ইনিংস গোড়াপত্তন করতে দেখা গেছে দুই বিদেশি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও জনি বেয়ারস্টোকে। অধিনায়কত্বের কারণে একাদশে নিয়মিত থাকতে হয়েছে কেন উইলিয়ামসনকে। বরাবরের মতো এবারো ফ্র্যাঞ্চাইজিটি ভরসা রেখেছেন লেগস্পিন জাদুকর রশিদ খানের ওপর। বোলিংয়ের পাশাপাশি ব্যাট হাতেও দ্যুতি ছড়িয়েছেন তিনি।

ফলে সাকিব ছাড়াও ডাগআউটে বসে থাকতে হয়েছে মার্টিন গাপটিল, মোহাম্মদ নবী, বিলি স্টেনলেকের মতো তারকারদের। বিদেশি তারকাখচিত দলের একাদশে সুযোগ পাওয়া সহজ হবে না আগে থেকেই জানতেন সাকিব। অবশ্য দলের প্রথম ম্যাচেই খেলার সুযোগ পান তিনি। তবে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। সঙ্গত কারণেই একাদশ থেকে ছিটকে যান বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

সংবাদ সম্মেলনে সাকিব বলেন, পেশাগত দিক থেকে আমরা আমাদের দায়িত্ব সম্পর্কে অবগত। যেভাবে আমাদের বিদেশি ক্রিকেটাররা পারফরম করেছে, আমাকে নেয়ার কোনো সুযোগ ছিল না। আমি জানতাম এমনটা হবে। ওয়ার্নার, বেয়ারস্টো দলের ৬০-৭০ ভাগের মতো রান করে দিচ্ছিল। কেন উইলিয়ামসন অধিনায়ক এবং রশিদ তো রশিদই। তাদের জ্বালাময়ী পারফরম্যান্সের ভিড়ে দলে জায়গা পাওয়া খুবই কঠিন। তবে আমি কঠোর পরিশ্রম করেছি। সুযোগ পেলে দলের জন্য অবদান রাখার জন্য প্রস্তুত হয়েছি।

ভিডিও:

টুর্নামেন্টে হায়দরাবাদের প্রথম ম্যাচে দলে সুযোগ পেয়েছিলেন সাকিব। কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে সেই ম্যাচে ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি তিনি। ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৪২ রান খরচায় শিকার করেন ১ উইকেট। এরপর আট ম্যাচ একাদশের বাইরে থেকেছেন। সুযোগ পেয়েছেন চেন্নাইয়ের বিপক্ষে মাঠে নামার। এতেও ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ক্যাপ্টেন। তবে উইকেটের দেখা না পেলেও বল হাতে কিপটে বোলিং করেছেন তিনি, দিয়েছেন মাত্র ৬.৭৫ ইকোনমিতে ২৭ রান।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’