ডিমলায় তিন স্থানে অভিযান চালিয়ে পাঁচ জনকে ধরল পুলিশ!

মোঃ বাদশা সেকেন্দার (ভুট্টু), ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি-  বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুর ১২ টায় নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের মৃত: দৌলত খান এর ছেলে সিরজউদ্দৌলা (৪২) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে ডিমলা থানা পুলিশ।

জানা গেছে, সিরাজউদ্দৌলা রাইস মিলের একজন মালিক ছিল। তিনি দীর্ঘদিন পূর্বে পল্লী বিদ্যুতের বকেয়া বিল পরিশোধ করার পরেও পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃক মামলার ওয়ারেন্ট ইস্যু হওয়ার কারনে ডিমলা থানার এস.আই- আঃ রউফ, এস.আই- আঃ রাজ্জাক গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মতির বাজার নামক স্থান হতে তাকে গ্রেফতার করে।

অপর দিকে রাত ৯ টার সময় ডিমলা সদর ইউনিয়নের দক্ষিন তিতপাড়া (বড়জুম্মা) এলাকা থেকে ৩ জুয়ারীকে আটক করে। জুয়ারীরা হলেন- সাহাদুল ইসলামের পুত্র সাদ্দাম হোসেন (২২), আঃ মজিদের পুত্র মোবারক হোসেন (৪২), রফিকুল ইসলামের পুত্র জহুরুল ইসলাম (২৫)।

ডিমলা থানার এস.আই মাহাবুব, এস.আই-রাশেদ,এস.আই মাসুদ ও সঙ্গীয় ফোর্স সহ তাদের গ্রেফতার করেন এবং নুর আলমের পুত্র আফিউল ইসলাম (৪৩) ঘটনাস্থল হইতে কৌশলে পালিয়ে যায় বলে জানা গেছে। তাদের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে জুয়া ১৮৬৭ সালের আইন অনুযায়ী একটি মামলা দায়ের করা হয়। যার মামলা নং- ১৯, তারিখ- ২৩ এপ্রিল-১৯ এবং পৃথক আরেক অভিযানে রাত ১০.৩০ ঘটিকায় পূর্ব ছাতনাই কলোনী বাধের পাড় হইতে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছেন ডিমলা থানার পুলিশ।

জানা গেছে, আটককৃত ব্যক্তি ডোমার থানার মির্জাগঞ্জ গ্রামের নুরুন্নবী ইসলামের পুত্র আরিফ হোসেন (৩৩)। তাকে ৪০ গ্রাম গাজা সহ আটক করা হয়।

ডিমলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মফিজ উদ্দিন শেখ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মাদক ও জুয়া চোরাচালান এর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন হয়েছে, ভবিষ্যতেও এমন অভিযান অব্যহত থাকবে। বুধবার দুপুরে আটককৃতদের নীলফামারী জেলা আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’