ফেনীর সেই ওসি মোয়াজ্জেমকে রংপুরে বদলী, ক্ষোভে ফুঁসে উঠেছে রংপুরবাসী!

রংপুর প্রতিনিধি- ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় গাফিলতির প্রমাণ পাওয়ার পর সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করে রংপুর ডিআইজির কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়েছে।

পুলিশ সদর দপ্তরের গঠিত তদন্ত কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মোয়াজ্জেম হোসেন আপাতত বেতন-ভাতা ও পদ অনুযায়ী সুযোগ-সুবিধা পাবেন না। শুধু নিয়ম অনুযায়ী খোরাকি ভাতা পাবেন।

এদিকে ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে রংপুর ডিআইজির কার্যালয়ে সংযুক্ত করার সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর রংপুরে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মোয়াজ্জেম হোসেনের রংপুর বদলীর প্রতিবাদে তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

রংপুর ডিভিশন নামে একটি গ্রুপে মুশফিক শাহরিয়ার নামে একজন প্রতিবাদ জানিয়ে লিখেছেন, প্রতিবার তনু আর নুসরাতরা ধর্ষিত হবে আর আমরা মানববন্ধন করবো। এভাবে কখনো ধর্ষণ ঠেকানা সম্ভব নয়। বরং এমন কীট গুলোর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান। সবাই যার যার জায়গা থেকে প্রতিবাদ করি। এমন কীট যেন রংপুরে থাকতে না পারে। ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোয়াজ্জেমকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করে রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি অফিসে সংযুক্ত করেছে।

‘জেগো উঠো রংপুর বাসি’ নামে এক গ্রুপে মো. আরিফ আলী লিখেছেন, রংপুরের সকল রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, সমাজ সেবক, মানবাধিকার সংগঠন, নারী সংগঠন, দলমত নির্বিশেষে সকলে এক কাতারে দাঁড়িয়ে প্রতিহত করার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। রংপুরের ডিআইজি মহোদয় কে অনুরোধ জানাবো, তাকে যেন গ্রহণ করা না হয়। অনথায় আমরা রাজপথ এ নামতে বাধ্য হব।

আগামি ৭২ ঘন্টার মধ্যে এই ওসিকে রংপুর থেকে প্রত্যাহার করা না হলে রংপুর বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়, রংপুর ডি. আই.জি অফিস ও রংপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

তানভীর নামে একজন ফেসবুক আইডিতে লিখেছেন, যে অফিসার শ্লীলতাহানি হয়েছে এমন একটি মেয়ের জবানবন্দি ভিডিও করে অনলাইনে ছেড়ে দেয় আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারার ঘটনাকে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে, যাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করে কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর কথা সেই অফিসার কে শাস্তি না দিয়ে বরং রংপুর রেঞ্জে বদলী করে দেওয়া হয়েছে। হোক প্রতিবাদ “এমন হত্যাকারী,ধর্ষণকারীদের প্রশ্রয় দাতা নরকীট অফিসার” রংপুরে আসতে না পারে। রংপুর বিভাগীয় উন্নয়ন আন্দোলনের সদস্য হিসাবে এর তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করছি।

মোঃ সাইয়াদুল ইসলাম সাঈদ ডিবিআর ঢাকাস্থ রংপুরবাসী নামে ফেজবুক আইডিতে লিখেছরন, এই বিকৃত মানসিকতার ওসি আমাদের রংপুরের ওসি হতে পারে না! এর মত বেয়াদব ওসি রংপুরে আসলে রংপুরের মা,বোন নিরাপদ থাকবে না। এর বিরুদ্ধে আন্দোলন হবে।

এদিকে নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় গাফিলতির প্রমাণ পাওয়ার পর সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে সাময়িক বরখাস্ত করে রংপুর রেঞ্জের ডিআইজির কার্যালয়ে বদলি করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশের সহকারী মহাপরিদর্শক (মিডিয়া) সোহেল রানা।

তিনি বলেন, পুলিশ সদর দফতরের গঠিত তদন্ত কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মোয়াজ্জেম হোসেন আপাতত বেতন-ভাতা ও পদ অনুযায়ী সুযোগ-সুবিধা পাবেন না। শুধু নিয়ম অনুযায়ী খোরাকি ভাতা পাবেন।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’