জলঢাকায় ভাতিজির সাথে বিয়ের কাবিননামা প্রকাশ করে ফাঁসলেন চাচা!

নীলফামারীনিউজ, ডেস্ক রিপোর্ট- নীলফামারীর জলঢাকায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাতিজির সাথে নিজে বিয়ে নিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এক চাচাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

অভিযুক্ত চাচার নাম- একরামুল হক (২২)। সে পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড চৌধুরীপাড়া এলাকার ছাইদুল ইসলামের ছেলে। শনিবার বিকেলে তাকে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুজাউদ্দৌলা তাকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন।

মেয়ের বাবা হাফিজুর রহমান জানান, তার মেয়ে সদ্য এসএসসি পাস করেছে। স্কুলে থাকাকালীন প্রায়ই ইভটিজিংসহ পথরোধ করে নানান অঙ্গভঙ্গি, অশ্লীল কথাবার্তা বলতো প্রতিবেশী চাচা একরামুল। এক পর্যায়ে সে নিজের ফেসবুক আইডিতেেআমার মেয়ের নামে ভুয়া কাবিননামা দিয়ে তাদের বিয়ে হয়েছে বলে প্রচার করতে থাকে। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি লিখিতভাবে জানাই।

জলঢাকা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগ পেয়ে তাকে গ্রেফতার করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট একরামুলকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন। রোববার সকালে তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’