তারাগঞ্জ ইউএনও’র নাম্বার ক্লোন করে অর্ধলক্ষ টাকা হাতিয়ে নিল প্রতারক চক্র

তারাগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি- রংপুরের তারাগঞ্জে ইউএনও’র মোবাইল নাম্বার ক্লোলন করে টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, বুধবার সকাল ৯.৫৭ মিনিটে উপজেলার কাজিপাড়া আদর্শ মহিলা বিএম কলেজের অধ্যক্ষ আনিছুল হকের মোবাইল ফোনে ইউএনও আমিনুল ইসলামের অফিসিয়াল মোবাইল নাম্বার হতে ফোন আসে। এরপর তিনি সম্ভোধন করে বলেন আপনি কই আসেন। অধ্যক্ষ আনিছুল হক মুঠো ফোনে বলেন অফিসে যাচ্ছি। এরপর তিনি বলেন, আপনার প্রতিষ্ঠান ও অফিসে কম্পিউটারের প্রয়োজন তাই মন্ত্রনালয় হতে ভাল মানের কয়েকটা কম্পিউটার দেয়া যাবে। এর জন্য ওই দিনই তাৎক্ষনিক ভাবে বিকেলে যারা আসবে তাদের খরচের জন্য কিছু টাকা দিতে হবে বলে জানায়।

ইউএনও’র মোবাইল নাম্বার ক্লোলন করে তার পারসোনাল মোবাইল নাম্বার ০১৭০৫৮১৮২৫৮ পরিচয় দিয়ে একাধিক বার টাকা নেওয়ার কথা বলে। কাউকে একথা বলার কোন প্রয়োজন নেই বলে জানান। পরে প্রতি কম্পিউটারের জন্য ৮ হাজার টাকা করে পাঠানোর জন্য বিকাশ নাম্বার ০১৮২২৭৩৭৩৫৭ ও ০১৮৮৩১১৪৫৬৬ দেন।

সর্বশেষ দুপুর ২.৩১ মিনিটে টাকা পেয়েছেন বলে নিশ্চিতও করেন তিনি। ওই দিন বিকেলে ওই কম্পিউটার দেওয়ার কথা। নানা টালবাহনা করে সময় কালক্ষেপন করতে থাকে। একপর্যায়ে খোজ খবর নেন অফিসে এবং জানতে পারেন তিনি প্রতারনার শিকার হয়েছেন।

কাজিপাড়া আদর্শ মহিলা বিএম কলেজের অধ্যক্ষ আনিছুল হক বলেন, প্রথমে আমি বুঝতে পারিনি, ইউএনও স্যারের নাম্বার কোলন করেছে প্রতারক চক্র। তারা বিকাশ নাম্বার দিয়ে কয়েকে দফায় মোট ৪৮হাজার ৮শ’ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

ইউএনও আমিনুল ইসলাম বলেন, আমার নাম্বার কোলন করা হয়েছিলো, এ বিষয়ে আমি কিছুই জানি না,পরে জানলাম। ঘটনাটি আমার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। জরুরী ভিত্তিতে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তারাগঞ্জ থানার ওসি জিন্নাত আলী বলেন, ওই ঘটনায় থানায় বৃহস্পতিবার আজ পৃথক দুটি সাধারন ডায়েরী হয়েছে। তথ্য মতে নাম্বার কোলন সহ অপরাধীদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’