চিরিরবন্দরে ঘরের দরজা বন্ধ করে ছেলের বউয়ের ইজ্জত লুন্ঠন করল শ্বশুর!

মোহাম্মাদ মানিক হোসেন, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি- দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে ছেলের স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর সফিকুল ইসলাম ওরফে ছপু (৪৮) কে আটক করেছে চিরিরবন্দর থানা পুলিশ। রোববার বিকেলে তাকে ভুষিরবন্দর বাজার এলাকা থেকে আটক করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে চিরিরবন্দর উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়নের রাণীরবন্দর বালাপাড়া গ্রামের হঠাৎ পাড়ায়।

ধর্ষিত ওই নারী (১৯) জানান, আমার শ্বশুর ছপু বাড়িতে প্রায় নেশা করে আসতো। বাড়ি ফাঁকা পেলেই আমাকে কু-প্রস্তাব ও অনেক খারাপ কথা বলতো। আমার স্বামী মো. সবুজ মালেক (২১) কে সু-কৌশলে পান ও সিগারেট আনার জন্য বাড়ির বাইরে পাঠিয়ে দেয়। এই সুযোগে আমার শ্বশুর বাড়ির বারান্দা থেকে হঠাৎ জাপটে ধরে মুখ চেপে ঘরের ভেতরে আমাকে নিয়ে গিয়ে দরজা বন্ধ করে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে।

জানা যায়, সফিকুল ইসলাম ওরফে ছপু দীর্ঘদিন যাবত নশরতপুর ইউনিয়নের রাণীরবন্দর বালাপাড়া গ্রামের হঠাৎ পাড়ায় তার শ্বশুর বাড়িতে বসবাস করে আসছে। সে খানসামা উপজেলার আঙ্গারপাড়া ইউনিয়নের চৌরঙ্গি গ্রামের মৃত রহমুতুল্লার ছেলে।

ওই ঘটনায় ছেলের স্ত্রী নিজে বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে শশুরের বিরুদ্ধে চিরিরবন্দর থানায় মামলা দায়ের করেন। সোমবার সকালে ওই গৃহবধূকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’