পার্বতীপুরে উচ্ছেদ অভিযানে পাঁচ শতাধিক মানুষ বেকার ও শতাধিক পরিবার গৃহহীন

ডেস্ক রিপোর্ট-দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুরে রেলওয়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে প্রথমদিনে ছোট বড় পাঁচ শতাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও দেড় শতাধিক বসতবাড়ি গুড়িয়ে দেয়া হয়। এতে প্রায় পাঁচ শতাধিক দোকানদার বেকার ও দেড় শতাধিক পরিবার গৃহহারা হয়েছে।

বুধবার(১৮সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টা থেকে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ পার্বতীপুর শহরের বাসষ্ট্যান্ড, হুগলীপাড়া ও গুলপাড়া এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

পার্বতীপুরে রেলওয়ের ফাঁকা জমিতে গড়ে উঠা হাজার হাজার ঘর- বাড়ী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদের পরিকল্পনা নেয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। ইতোপূর্বে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের দিন ক্ষন সময় নির্দ্ধারন করা হলেও অজ্ঞাত কারনে তা স্থগিত করা হয়। এবারে রেল কর্তৃপক্ষ পূর্ব সিদ্ধান্ত মোতাবেক ১৮ ও ১৯ সেপ্টেম্বর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে পরিকল্পনা নেয়। পরিকল্পনা অনুযায়ী আজ বুধবার সকাল থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে নামে রেল কর্তৃপক্ষ। উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনাকারী রেলওয়ে পাকশী বিভাগের ভূ-সম্পতি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব নুরুজ্জামান জানান, দুই দিনের উচ্ছেদ অভিযানের প্রথম দিনে আজ বুধবার প্রায় এক হাজার ঘর-বাড়ী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উচ্ছেদ করা হয়েছে। আগামীকালও এ অভিযান চলবে।

উচ্ছেদ অভিযানে পার্বতীপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব আবু তাহের মো: শামসুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন। রেলওয়ের গড়ে উঠা পার্বতীপুর শহরের বাড়ী-ঘর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের উচ্ছেদ হওয়া মানুষ বেকার ও গৃহহীন হয়ে পড়েছে। অনেকের আহাজারীতে ত্রলাকার পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছে। মানুষের মধ্যে বিরাজ করছে উচ্ছেদ আতংক।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’