চলন্ত লালমনি এক্সপ্রেসে সন্তান জন্ম দিলেন মা!

নীলফামারীনিউজ, ডেস্ক রিপোর্ট- ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা লালমনিরহাটগামী আন্তঃনগর ‘লালমনি এক্সপ্রেস’ ট্রেনে এক ফুটফুটে শিশুর জন্ম দিলে মা। প্রসূতীর নাম নবিয়া বেগম।

বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের প্রসূতি বিভাগে মা ও শিশুটির চিকিৎসা চলছে।

মঙ্গলবার সকালে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) ডা. আবদুল ওয়াদুদ জানান, মা ও শিশু তাদের প্রসূতি বিভাগে চিকিৎসাধীন। তাদের অবস্থা উন্নতির দিকে। বুধবার তাদের ছেড়ে দেয়া হবে।

জানা গেছে, লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার তেঁতুলিয়া গ্রামের ছকমল মিয়া ঢাকায় নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করেন। স্ত্রী নবিয়া বেগমকে নিয়ে রোববার রাত ১১টার দিকে লালমনিরহাটগামী আন্তঃনগর লালমনি এক্সট্রেনে ওঠেন। মধ্য রাতে ট্রেন পাবনার ঈশ্বরদী এলাকায় পৌঁছলে নবিয়ার প্রসব ব্যথা ওঠে।

একপর্যায়ে তিনি একটি ফুটফুটে শিশু প্রসব করেন। এ সময় অন্যযাত্রীরা টের পেয়ে নাড়িকাটা ও অন্যান্য প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। যাত্রীরাই শিশুর নাম রাখেন ইব্রাহিম। সোমবার সকাল ৭টায় ট্রেন বগুড়া স্টেশনে পৌঁছায়।

এ সময় নবিয়া বেগম যন্ত্রণায় কান্নাকাটি করছিলেন। তখন স্টেশনকর্মী সাগর মাহমুদ ‘৯৯৯’ নম্বরে ফোন দেন। কিছুক্ষণের মধ্যে বগুড়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার বজলুর রশিদের নেতৃত্বে কর্মীরা ছুটে আসেন। সন্তানসহ প্রসূতিকে উদ্ধার করে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করেন।

বগুড়ার সহকারী স্টেশনমাস্টার আবদুল্লাহ জানান, ট্রেনে শিশু জন্ম নেয়া বিরল ঘটনা।

মঙ্গলবার সকালে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) ডা. আবদুল ওয়াদুদ জানান, মা ও শিশু তাদের প্রসূতি বিভাগে চিকিৎসাধীন। তাদের অবস্থা উন্নতির দিকে। বুধবার তাদের ছেড়ে দেয়া হবে।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’