নীলফামারী সদর লীড নিউজ

বাংলাদেশে এই প্রথম বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় টিউলিপ ফুল ফুটলো নীলফামারীতে!

নীলফামারীনিউজ, ডেস্ক রিপোর্ট- টিউলিপ সাধারণত শীত প্রধান অঞ্চলের ফুল। আর আমাদের দেশ ছয় ঋতুর। এই ছয় ঋতুর দেশে টিউলিপ চাষ দুরূহ ব্যাপার। কিন্ত নীলফামারী শহরেরর সবুজপাড়া মহল্লার গৃহিনী ফজিলাতুন প্রধানের (৬০) বাগানে শোভা পেয়েছে টিউলিপ ফুল।

জেলা শহরের তার বাড়ির বাগানে ওই ফুল ফুটার খবরে প্রতিবেশীরা ভীড় জমিয়েছেন।প্রকৃতি প্রেমী ফজিলাতুন প্রধান ওই মহল্লার মো. সফিউল হক প্রধানের স্ত্রী। ফুল বাগানের নেশা তার পুরোনো। সে নেশায় নিজ বাসায় আঙ্গিনায় গড়ে তুলেছেন ছোট্ট একটি বাগান। বাগানে অন্য প্রজাতির সঙ্গে স্থান পেয়েছে টিউলিপ ফুল।তার ওই বাগানে গিয়ে দেখা গেছে লাল, সাদা, গোলাপী গোলাপ, ডালিয়া ও গাদাসহ নানা প্রজাতির ফুলের সঙ্গে টিউলিপ ফুল। ওই টিউলিপ ফুল দেখতে আসছেন প্রতিবেশী অনেকে। এ প্রথম টিউলিপ ফুল দেখলেন বলে মন্তব্য করেন অনেকে।

গত বছরের নভেম্বর মাসের শেষের দিকে তিনি ২০টি টিউলিপ ফুলের বীজ বপন করেন বাগানে। ওই বীজ থেকে গজানো চারা থেকে এখন পর্যন্ত তার ১৭টি ফুল ধরেছে। প্রায় ১০ দিন আগে থেকে ফুলগুলো ফুটতে থাকে। ফজিলাতুন প্রধান বলেন, ‘আমি ছোট বেলা থেকে প্রকৃতিকে অনেক বেশি ভালোবাসী। সেই থেকে সংসারের কাজের ফাঁকে নিজের হাতে গড়া ফুল বাগানের পরিচর্যা করি। নিজের হাতে গড়া বাগানের ফুলের মাঝে সময় কাটাতে আমার বেশ ভালোই লাগে।আমার মেয়ে এবং জামাই জিয়াউল হক কানাডার টরেণ্টোতে থাকে। কৃষিবিদ জামাই গত বছরের নভেম্বর মাসে মেয়েসহ দেশে আসার সময় ২০টি টিউলিপ ফুলের বীজ আমাকে এনে দেয়। আমি বীজগুলো ফ্রিজে রেখে নভেম্বর মাসের শেষের দিকে বাগানে রোপন করি। অল্পদিনের মধ্যে গাছ হয়। প্রায় ১০দিন আগে ফুল ফুটতে শুরু করে। ফুলগুলো দেখতে খুবই সুন্দর।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক (উদ্যান) মো. এনামুল হক বলেন, টিউলিপ বিদেশি ফুল। এটি শীত প্রধান দেশে হয়। দেশে বিভিন্ন অঞ্চলে দুই তিন বছর ধরে বিভিন্ন এলাকায় ওই ফুল ফোটার খবর পাওয়া যাচ্ছে। তবে নীলফামারী জেলায় স্বল্প পরিসরে এটাই প্রথম। এটা শীত মৌসুমে হয়েছে, সামার মৌসুমে কী হয় সেটা দেখার বিষয়।

ভিডিও দেখুন….