বাছাই সংবাদ

রাস্তায় ঘোরাঘুরি করায় ৬৩ হাজার টাকা জরিমানা

নীলফামারীনিউজ, ডেস্ক রিপোর্ট- কিশোরগঞ্জের ভৈরবে সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে সাঁড়াশি অভিযানে মাঠে নেমেছে উপজেলা প্রশাসন। শহরের অলি-গলি ও সড়কে বিনা কারণে ঘোরাঘুরি এবং উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের পাড়া-মহল্লায় চায়ের দোকানে বসে আড্ডা দেয়ায় ৩৪ জনকে ৬৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এর মধ্যে বৃহস্পতিবার (০২ এপ্রিল) ১২ জনকে ৩২ হাজার টাকা এবং বুধবার (০১ এপ্রিল) ২২ জনকে ৩১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট লুবনা ফারজানা এবং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিমাদ্রি খিসা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বুধবার সরকারের নির্দেশনা অমান্য করে বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খুলে রাখা হয়। বিনা কারণে মানুষজন সড়কে ঘোরাঘুরি করতে দেখেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার রাতে শহরের গাছতলা ঘাট, মেঘনা ফেরিঘাট, নদীর পাড়, কাঠপট্টি, ঋষিপট্টিতে অভিযান চালিয়ে জরিমানা করা হয়।

বৃহস্পতিবার ভৈরব বাজারসহ শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকা, ফেরিঘাট, চন্ডিবের, পঞ্চবটি, কমলপুর, জগন্নাথপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় লোকজনকে জরিমানা করা হয়। সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অযথা রাস্তায় ঘোরাঘুরি, মাস্ক না পরা, অপ্রয়োজনীয় দোকান খোলা রাখা, লোকসমাগম করে আড্ডা দেয়ার অপরাধে তাদের জরিমানা করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট লুবনা ফারজানা বলেন, দেশের দুঃসময়ে করোনা সংকটের মধ্যেও এলাকার লোকজন আইন অমান্য করে রাস্তাঘাট, হাটবাজার, চায়ের দোকানে লোকসমাগম করে আড্ডা দেয়ার অপরাধে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করা হয়। সরকারি নিষেধাজ্ঞা যতদিন থাকবে ততদিন অভিযান চলবে।