নীলফামারী সদর লীড নিউজ

নীলফামারীর করোনা আক্রান্ত গৃহবধূর কন্যা সন্তান জন্ম

নীলফামারীনিউজ, ডেস্ক রিপোর্ট- রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত এক গৃহবধূ কন্যা সন্তান জন্ম দিয়েছেন। এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর মেডিকেল কলেজের পরিচালক ডা. ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী।

তিনি জানান, মা ও সন্তান দুজনেই ভালো আছেন। নবজাতকের করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করা হবে। করোনায় আক্রান্ত হলেও মায়ের শারীরিক অবস্থা ভালো আছে।

রমেক হাসপাতাল ও গৃহবধূর পরিবারিক সূত্রে জানা গেছে, প্রায় চার বছর আগে পঞ্চগড়ের ভাউলাগঞ্জ এলাকার এক যুবকের সঙ্গে বিয়ে হয় নীলফামারীর সবুজপাড়া এলাকার ওই নারীর। বিয়ের পর এটাই তাদের প্রথম সন্তান। গর্ভে সন্তান আসার কিছুদিন পর স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়ি নীলফামারীতে আসেন ওই গৃহবধূ। এরই মধ্যে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। কয়েকদিন আগে করোনা উপসর্গ দেখা দিলে তার নমুনা নিয়ে পরীক্ষা করা হয়। গত রোববার নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে করোনা
পজিটিভ আসে গৃহবধূর।

চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী ১৭ মে তার সন্তান প্রসবের সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করা থাকলেও করোনা শনাক্ত হওয়ায় গত সোমবার বিকেলে নীলফামারী থেকে এসে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন গৃহবধূ। এরপর বুধবার রাতে সফল অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন তিনি।

হাসপাতালের অধ্যক্ষ ডা. নুরুন্নবী লাইজু বলেন, বুধবার রাতে ওই গৃহবধূকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে সফলতার সঙ্গে সিজারিয়ান অপারেশন করা হয়। এতে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন তিনি।