শেষ চার নিশ্চিতে দলকেই কৃতিত্ব দিলেন গম্ভীর

নীলফামারীনিউজঃ জিতলে প্লে অফে খেলতে পারবেন আর হারলে টুর্নামেন্ট থেকে বাদ। এমন সমিকরনকে সামনে রেখে হায়দ্রাবাদ সানরাইজার্সেরের মুখোমুখি হয়েছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স।

আর এই লড়াইয়ে জয় পেয়েছে কলকাতা। হায়দ্রাবাদকে ২২ রানে হারিয়ে শেষ চারে নিজেদের জায়গা নিশ্চিত করেছে এই দলটি। টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ইউসুফ পাঠান এবং মনিষ পান্ডের ব্যাটে ১৭১ রান সংগ্রহ করে তারা; জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৪৯ রানেই থামতে হয় সানরাইজার্সদের।

এই ম্যাচে একে অপরের বিপক্ষে খেলেছেন মুস্তাফিজ এবং সাকিব। ব্যাটিংয়ে সাকিব করেছেন মাত্র সাত রান তবে বোলিংয়ে একটু খরুচে হলেও তুলে নিয়েছেন ভয়ঙ্কর যুবরাজের উইকেটটি। অপরদিকে মুস্তাফিজও নিজের চার ওভারে রান দিয়েছেন ৩২; সাকিবের থেকে যা দুই কম, সেই সাথে উইকেটও নিয়েছেন একটি। জ্যাসন হোল্ডারকে ফিরিয়েছেন তিনি।

এদিকে ম্যাচ শেষে বেশ স্বস্তিতেই রয়েছেন কলকাতার দলপতি গৌতম গম্ভীর। প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি জানালেন, দলের এমন জয়ই চান তিনি, সেই সাথে এই ম্যাচকে টুর্নামেন্টে নিজেদের সবচেয়ে কঠিন ম্যাচও বলেছেন তিনি। পুরো দলকেও অভিনন্দন জানান তিনি। সামনের ম্যাচগুলোতে আরও ভালো ক্রিকেট প্রদর্শনেরও অঙ্গীকার করেন তিনি।

‘আমাদের জন্য এটা অনেক কঠিন একটি ম্যাচ ছিল, যেখানে জয় অপরিহার্য ছিল। আমি পুরো দলকেই এই জয়ের জন্য কৃতিত্ব দিতে চাই। আমরা গত দুই ম্যাচে ভালো খেলতে পারিনি, নিজেদের বেশ কিছু ভুলে আমাদের মাচ দুইটি হারতে হয়েছিল যা আমাদের অনেক পিছিয়ে দিয়েছিল। কিন্তু এই জয় দিয়ে আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি। আমরা যেই ভাবে এই ম্যাচটি খেলেছি তা সত্যি অসাধারণ।’

‘‌‌ইউসুফ পাঠান অসাধারণ ব্যাটিং করেছে। আমাদের একজন যখন ব্যর্থ হয় অপরজন জ্বলে ওঠে, এটাই আমাদের দলে বিশেষত্ব। ইউসুফের দলে এখন অনেক বড় একটি রোল রয়েছে। সময়ের সাথে সাথে সে আরও ভালো ভূমিকা রাখছে দলের হয়ে, একসময় সে বল করত আর এখন সে আমাদের মিডল অর্ডারকে নেতৃত্ব দেয়। আমি মনে করেছিলাম ১৬০ রানই যথেষ্ট হত জয়ের জন্য, কিন্তু আমরা তার চেয়েও বেশী রান করেছি।’

কেকআর দলপতি আরও বলেন, ‘আমাদের এই ম্যাচ থেকে অনেক ভালো কিছু নেওয়ার রয়েছে। আমার ভালো লাগছে আমরা পরে বোলিং করেও ম্যাচ জিতেছি, এরকম পিচে পরে বল করাটা একটু কঠিন কাজ তবে ম্যাচে যেভাবে আমরা ফিরে এসেছি তা সত্যিই অসাধারণ। আমাদের দলে রাসেল নেই, তাকে না পাওয়া আমাদের অনেক বড় একটি ক্ষতি। কিন্তু তারপরও আমরা দলকে গুছিয়ে এনেছি। দলে যেরকম পরিবর্তন দরকার, সেই পরিবর্তনগুলোই আমরা করেছি।’

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’