সৈয়দপুর শহরে ফুটপাত দখলমুক্ত করতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু

নীলফামারীনিউজ, ডেস্ক রিপোর্ট- নীলফামারীর সৈয়দপুরে উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক গৃহিত সপ্তাহব্যাপী ফুটপাত দখলমুক্ত ক্যাম্পেইনের ডাকে ব্যবসায়ীরা সাড়া না দেয়ায় পৌরসভা এলাকায় ফুটপাত দখলদারদের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়েছে। সোমবার (১৬ অক্টোবর) সকাল থেকে ফুটপাত দখলমুক্ত করতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) নেতৃত্বে এ অভিযান চলে।

এসময় শহরের শহীদ ডা. জিকরুল হক ও শহীদ ডা. শামসুল হক সড়কের বিভিন্ন দোকান-পাটের সামনের ফুটপাতে গড়ে ওঠা দুই শতাধিক অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দেয়া হয়।

উচ্ছেদ অভিযানে সহায়তা করেন সৈয়দপুর পৌরসভার কর্মী ও পুলিশ সদস্যরা।

জানা যায়, উত্তর জনপদের সবচেয়ে ব্যস্ততম সৈয়দপুর শহরটিতে সড়ক ও ফুটপাত দখল করে অবৈধ স্থাপনা গড়ে জনদুর্ভোগের সৃষ্টি করছে ব্যবসায়ীরা। এছাড়া বাইপাস সড়ক থাকার পরও দিনের বেলা শহরের ভেতর দিয়ে ভারী যানবাহন চলাচল ও যত্রতত্র মালামাল উঠানো-নামানো হচ্ছে। এতে করে গত এক বছরে সৈয়দপুর শহরে ৫ জনের প্রাণহানী ঘটে। তাই এ উচ্ছেদ অভিযান।

এর আগে ‘জনস্বার্থে দখলমুক্ত ফুটপাত চাই, যানজটমুক্ত রাস্তা চাই, পথচারীদের জন্য ফুটপাত’ শীর্ষক ছয়দিন ব্যাপী ক্যাম্পেইন চলে সৈয়দপুরে। সচেতনতামূলক এ ক্যাম্পেইনটি চলে ১০ থেকে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত। উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত এ ক্যাম্পেইনে সহযোগিতা করে সৈয়দপুর পৌরসভা, সৈয়দপুর থানা ও ট্রাফিক বিভাগ, সাংবাদিক, শিক্ষক-শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের মানুষ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. বজলুর রশীদ নীলফামারীনিউজকে জানান, সৈয়দপুর শহরকে যানজটমুক্ত করতে আমরা সকলকে আহ্বাহ জানিয়েছি। যারা আমাদের আহ্বানে সাড়া দেয়নি তাদের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান চলবে।

Comments

comments

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’