যৌন হয়রানির অভিযোগকে আবার ‘ভুয়া’ বললেন ট্রাম্প

নীলফামারীনিউজ, ডেস্ক রিপোর্ট- প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সামার জারভোস নামে এক মার্কিন নারী যৌন হয়রানির যে অভিযোগ তুলেছেন তাকে ভুয়া বলে অস্বীকার করেছেন ট্রাম্প। ট্রাম্পের উপস্থাপনায় একটি রিয়েলিটি টিভি শো’র প্রতিযোগী ছিলেন সামার জারভোস।

গত বছরের অক্টোবরে এক সংবাদ সম্মেলনে সামার জারভোস মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনেন। ২০০৭ সালে ট্রাম্পের উপস্থাপনায় ‘অ্যাপ্রেন্টিস’ নামে একটি রিয়েলিটি শো হতো এবং সামার জারভোস ছিলেন সেই শো’র একজন প্রতিযোগী।

সামার জারভোস দাবি করেন, ট্রাম্পের নিউইয়র্কের কার্যালয়ে মধ্যহ্ন ভোজের সময় এবং ব্যাভারলি হিলসে অন্য এক অনুষ্ঠানে তাকে চুমু খান ট্রাম্প। তার অভিযোগ, ট্রাম্প তাকে জোর করে চুমু খান এবং তার বক্ষে স্পর্শ করেন।

গত রবিবার হোয়াইট হাউসের রোজ গার্ডেনে তাৎক্ষণিক এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, সামার জারভোস যে দাবি করছেন তা নিতান্তই নিজেকে তুলে ধরার চেষ্টা। এ খবরকে তিনি সম্পূর্ণ ভুয়া বলে মন্তব্য করেন।

এ সংবাদ সম্মেলনেও ট্রাম্প স্বভাবসুলভভাবে বলেন, ‘আমি আপনাদেরকে বলতে পারি- এসবই মিথ্যা খবর, নিতান্তই মিথ্যা। সব মিথ্যা। এসব হচ্ছে- নিজেকে তুলে ধরার চেষ্টা। এবং যা কিছু হয়েছে তা দুঃখজনক। যা ঘটেছে তা হচ্ছে বিশ্ব রাজনীতি।’

ট্রাম্প সাধারণত যেকোনো বক্তৃতায় এক কথা কয়েকবার বলেন। রবিবারের সংবাদ সম্মেলনেও তিনি একই কাজ করেছেন।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রচারণার সময় থেকে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন কেলেংকারিসহ নানা রকমের সমালোচনামূলক সংবাদ প্রকাশিত হয়ে আসছে এবং ট্রাম্প সেসব খবরকে মিথ্যা ও ভুয়া বলে চালিয়ে দিচ্ছেন। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে- এর আগে থেকেই ট্রাম্পের বিরুদ্ধে নানা রকম যৌন হয়রানি ও কেলেংকারির খবর বের হয়েছে। এমনকী, উইকিপিডয়াতেও ডোনাল্ড ট্রাম্পের যৌন হয়রানি নিয়ে বিস্তারিত তথ্য রয়েছে।

২০১৬ সালের নির্বাচনের আগে তার বিরুদ্ধে ১১ নারী যৌন হয়রানির অভিযোগ নিয়ে উপস্থিত হয়েছিলেন।

সূত্র: পার্স টুডে

Comments

comments

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’