জলঢাকায় তিস্তা ক্যানেলে ধরা পড়লো ৫৩ কেজি ওজনের ১০ফিট লম্বা সোর্ড ফিস !

বাদশাহ শাহজাহান, ভ্রাম্যমাণ প্রতিবেদক- নীলফামারীর জলঢাকা মাছ বাজারে বেশ হইচই। একটা দোকানকে ঘিরে অনেক মানুষের জটলা দেখে কৌতুহল বেড়ে গেল।

সোমবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৬টায় জলঢাকা মাছ বাজারের ফুল চাঁদ রায়ের দোকানে ভিড় করেছিল প্রায় শতাধিক মানুষ। উদ্দেশ্য বিশালাকৃতির বিরল প্রজাতির সোর্ড ফিস বা তলোয়ার মাছ দেখা ও দরদাম করা। ভিড় ঠেলে এগিয়ে গিয়ে দেখা গেল মাছ ব্যবসায়ী ফুলচাঁদের দোকানে প্রায় ৫৩ কেজি ওজনের ১০ফিট লম্বা সোর্ড ফিস বা তলোয়ার মাছ বিক্রির জন্য আনা হয়েছে।

জলঢাকা মৎস্যজীবি সমিতির সভাপতি ফুলচাঁদকে এ মাছটির ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি নীলফামারীনিউজকে বলেন, দুপুরে জেলার ডিমলা উপজেলার ডালিয়ার তিস্তা ক্যানেল থেকে এই মাছটি ধরেন কুড়িগ্রাম জেলার চিলমারী উপজেলার এক জেলে। তার কাছ থেকেই সাড়ে সাত হাজার টাকায় মাছটি কিনে জলঢাকায় বিক্রির জন্য নিয়ে আসেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, মাছটি লম্বায় প্রায় ১০ ফুট এবং ওজনে ৫৩ কেজি। দোকানে মাছটি রাখার সাথে সাথে আশেপাশের মানুষ তা দেখার জন্য ভিড় করতে থাকে এবং ১০হাজার টাকা পর্যন্ত দর ওঠে। সন্ধ্যায় মাছটি মাত্র ১৫০ টাকা কেজি দরে সাড়ে ৮হাজার টাকায় কিনে নেন তার জলঢাকারই মাছের মহাজন ওবায়দুল ইসলাম। এত কম দামে বিক্রির কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, যেহেতু মহাজন নিজেই খাবার জন্য নিয়েছেন তাই কম দামে দিয়েছি।

প্রসঙ্গত, সামুদ্রিক এ মাছটি (সোর্ড ফিস-sword fish) পৃথিবীর সবচেয়ে দ্রুতগতিসম্পন্ন জলজ প্রানী। এই মাছের সর্বোচ্চ গতি ঘন্টায় ১১০ কিলোমিটার ! ধারণা করা হচ্ছে, সমুদ্রের গতিপথ ভুলে যাবার কারণে মাছটি মিষ্টি পানিতে প্রবেশ করেছে।

Comments

comments

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’