ডোমারে স্ত্রীকে হত্যা করে মরদেহ ঝুলিয়ে রাখলো স্বামী, থানায় এজাহার !

নীলফামারীনিউজ, ডোমার অফিস- নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় সুমি রাণী (২৩) নামে এক গৃহবধ‍ূকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে তার স্বামী দিপক রায়ের বিরুদ্ধে।

বুধবার (১৩ জুন) সকালে উপজেলার গোমনাতী ইউনিয়নের মৌজা গোমনাতী সতীকুড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, ওই গ্রামের দিপক রায়ের স্ত্রী সুমি রানী (২৩) সকালে স্বামীর সাথে ঝগড়া করে। এরপর তার নিজ ঘড়ে সুমি রানীর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসী। পরিবারের দাবী সুমি রানী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

অপরদিকে সুমির বাবা সুশিল কুমার রায় ও মা গীতা রানী নীলফামারীনিউজকে জানান, সকালে আমার মেয়ের সাথে মোবাইল ফোনে কথা হয়। ঘড় মেরামত করার জন্য আমাদের কাছে টাকা চায়।এর কিছুক্ষন পরে জানতে পারি সে মারা গেছে। তার স্বামীর পরিবার প্রায় সুমিকে শারীরিক নির্যাতন করতো।

আজও তাকে নির্যাতন করে মেরে ফেলে আত্মহত্যার প্রচারনা চালায়। এ ব্যাপারে সুমির বাবা সুশিল কুমার রায় ডোমার থানায় একটি অভিযোগ দ্বায়ের করেন। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’