ডোমারে ভুয়া এসআই সেজে বাবা-ছেলের কাণ্ড, অতঃপর…!

নীলফামারীনিউজ, ডোমার অফিস- নীলফামারীর ডোমারে পুলিশের এক ভূয়া এসআই ও তার ছেলেকে আটক করে ডোমার থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

রোববার (০৭ জুলাই) দুপুরে ডোমার বাজার মসজিদ মার্কেটে থেকে তাদের অাটক করা হয়।

জানা গেছে, ডোমার পৌর কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান হাবিবের মালিকানাধীন হিমি বস্ত্রালয় থেকে পুলিশের এসআই রাশেদ পরিচয় দিয়ে তার ছেলেসহ ২২হাজার ৭শত ৫০টাকা মূল্যের বিভিন্ন পোশাক কিনে বাসায় দেখানোর কথা বলে নিয়ে যায়। এসময় দোকান মালিকের সন্দেহ হলে তার পিছু নেয়া শুরু করে। পুলিশের ওই এসআই ডোমার থানায় না গিয়ে জলঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। পরে তাকে অন্ধারুর মোড় নামক স্থানে আটক করে তার কথাবার্তায় সন্দেহ হলে ডোমার থানায় সোপর্দ করা হয়। ডোমার থানার জিঞ্জাসাবাদে তিনি জানান তার নাম আবুল কালাম আজাদ (৬০)। সে রংপুর সেনপাড়া মহল্লার মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে। তার ছেলের নাম মাহিদুল ইসলাম মাহি(১৭)।

এ সময় তার কাছ থেকে ১৩৫ সিসি ডিসকোভার মটোরসাইকেল রাজশাহী-ল-১১-২৫১০ উদ্ধার করা হয়। মটর সাইকেলের নাম্বার প্লেটে পুলিশ লেখা রয়েছে।

ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোকছেদ আলী নীলফামারীনিউজকে জানান, তারা বাবা ছেলে ইতিপূর্বে বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের পরিচয় দিয়ে এরুপ প্রতারনা করেছিল বলে স্বীকার উক্তি করেছে।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’

‘সব ধরনের ঘটনা আমাদের জানাতে ০১৭১০৪৫৪৩০৬ নাম্বারে কল করুন।’