নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে মাদ্রাসা শিক্ষকের বিরুদ্ধে সরকারী গাছ কেটে নেয়ার অভিযোগ

নীলফামারীনিউজ, কিশোরগঞ্জ (নীলফামারী) করেসপন্ডেন্ট- নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার ছাদুরারপুল থেকে কালিকাপুর চৌধুরী পাড়া বাজার যাওয়ার রাস্তার ৭টি সরকারী ফলজ ও কাঠের গাছ কেটে নিল গাছ বিনাশী আব্দুল মালেক।

সরজমিনে গিয়ে এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ছাদুরারপুল থেকে কালিকাপুর চৌধূরী বাজার যাওয়ার রাস্তায় ৬টি আমগাছও একটি বটগাছ লাগানো ছিল। এবার আম মৌসুমে ৬টি গাছে আম ধরেছিল। পথচারিরা ওই গাছের আম ছিড়ে খাওয়ায় ও তার জমিতে ছায়া পরার কারণে মিস্ত্রিপাড়ার মফিজ উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মালেক সরকারী এ গাছগুলো কেটে নিয়ে তরিঘরি করে সরিয়ে ফেলেন।

গাছ নিধনকারী আব্দুল মালেক বলেন, রাস্তার গাছ গুলোর কারণে আমার জমিতে চাষাবাদ হচ্ছিল না তাই গাছ গুলো কেটে বিক্রি করে দিয়েছি।

পুটিমারী ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহশীলদার আবু সায়েমের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, গাছগুলো সরকারী। রাস্তায় লাগানো ছিল। গাছ নিধনকারীর বিরুদ্ধে সরকারী সম্পদ আত্মসাতের কারণে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’