সৈয়দপুরে অগ্নিকান্ডে ১৩ পরিবারের সর্বস্ব পুড়ে ছাই!

এম এ মোমেন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট- নীলফামারীর সৈয়দপুরের পল্লীতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ১৩টি পরিবারের সর্বস্ব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। মঙ্গলবার (৭ আগষ্ট) দিবাগত রাত ১টার দিকে সংঘটিত এ অগ্নিকান্ডে প্রায় ৩০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের ১টি ইউনিট দীর্ঘ ২ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলো এখন খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছেন।

এলাকা ঘুরে জানা যায়, উপজেলার কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের পূর্ব বেলপুকুর সুতারপাড়ায় লোকমানের বাড়ি থেকে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সূত্রপাত হয়। দ্রুত সেই আগুন আশে পাশে ছড়িয়ে পড়ে। এতে প্রতিবেশী ওমর ফারুক, মোকছেদ আলী, বাহাদুর এর বাড়ির বসতঘর, গোয়ালঘর ও রান্নাঘর সহ মোট ২৫টি ঘরে আগুন লাগে। এতে ঘরের সকল আসবাবপত্র, ৭০ মন ধান, ৬টি বাই সাইকেল, ১০ ভড়ি স্বর্নালংকার, টেলিভিশন, স্কুলের বইপত্র, নগদ ৫ লাখ টাকা ও একটি গাভী সহ প্রায় ৫০ লাখ টাকা মালামাল পুড়ে যায়। খবর পেয়ে তারাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ১টি ইউনিট ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুন নেভানোর সময় মোকছেদ আলীর ২ ছেলে ওমর ফারুক (২৬) ও বাহাদুর গুরুত্বরভাবে আহত হয়।

তারাগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের গ্রুপ লিডার আফজাল হোসেন জানান, মূলত: বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। অগ্নিকান্ডে ১৩টি পরিবারের প্রায় আনুমানিক ৩০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোর মাঝে সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে প্রতিটি পরিবারকে ৩০ কেজি চাল, ১ কেজি তেল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি চিনি, সাবান ২টি, লুঙ্গি ও শাড়ি ১ টি করে, চিরা ২ কেজি এবং নগদ ৩ হাজার করে টাকা প্রদান করা হয়েছে।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’