দশ বছরে পারেনি- তিন মাসে বি এন পি কি করবে- সৈয়দপুরে ওবায়দুল কাদের

জাহিদুল হাসান জাহিদ- আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ক্ষমতাশীন দল আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়নের প্রচার অভিযান হিসেবে ঢাকা হতে উত্তরবঙ্গে ট্রেন সফরের মাধ্যমে প্রায় পনেরটি রেল ষ্টেশনে পথসভা করেন আওয়া লীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব ওবায়দুল কাদের ও তার সফর সঙ্গীয় কেন্দ্রীয় নেতারা৷

শনিবার (০৮সেপ্টেম্বর) রাত ৮টায় নীলফামারীর সৈয়দপুরে আওয়ামীলীগের আয়োজনে সৈয়দপুর রেলওয়ে ষ্টেশনের পথসভায় প্রধান অতিথির ভাষণে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে বানচাল করতে আন্দোলনের ডাক দিবে বিএনপি৷

এতে কোন লাভ হবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন৷ বিএনপির আন্দোলন হলো কচুর পাতার পানি৷ বিএনপি আন্দোনলের কথা বলছে দশ বছর ধরে কিন্তু তারা আন্দোলনের কোন রুপ রেখা নিয়ে রাজপথে আসতে পারেনি৷

তাই তিনি তার বক্তব্যে বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় দশ বছর,বি এন পি আন্দোলন করবে কোন বছর?

পথসভা চলাকালীন সময় উপস্হিত নেতা কর্মী সমস্বরে সৈয়দপুর ও কিশোরগঞ্জ নিয়ে গঠিত নীলফামারী-৪ আসনে আওয়ামীলীগের প্রার্থী ও নৌকা মার্কার দাবী করেন৷

ওই সময় তিনি বলেন, সৈয়দপুরের মানুষ ঈমানদার তারা আগামীতেও নৌকাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন৷

এসময় তার সফর সঙ্গী ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ নেতা এ্যাড:জাহাঙ্গীর কবির নানক, খালেদ মাহমুদ চৌধুরী, বি এম মোজাম্মেল হক, আহম্মদ হোসেন,আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, ড.হাছান মাহমুদ, অসিম কুমার উকিল, ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া প্রমূখ৷

এই সময় স্হানীয় নেতার মধ্যে উপস্হিত ছিলেন,সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আখতার হোসেন বাদল,সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো,মোখছেদুল মোমিন,পৌর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো,রফিকুল ইসলাম বাবু,সাধারণ সম্পাদক মো,মোজাম্মেল হক,পৌর আওয়ামীলীগের অন্যতম নেতা অধ্যাপক শাখাওয়াত হোসেন খোকন সহ প্রমূখ৷

পরে কেন্দ্রীয় নেতারা সবাই নীল সাগর ট্রেনে নীলফামারীর উদ্দেশ্যে চলে যান৷

এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো,আব্দুর সামাদ মন্ডল৷

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’