খালেদার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে কি না, আদেশ ২০ সেপ্টেম্বর

নীলফামারীনিউজ, ডেস্ক রিপোর্ট- জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে মামলার বিচারকাজ চলবে কি না- সে বিষয়ে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর আদেশ দেবে আদালত।

রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতরে অবস্থিত ঢাকার অস্থায়ী ৫ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মো. আখতারুজ্জামান বৃহস্পতিবার এদিন ঠিক করেন।

গতকাল বুধবারের মতো আজও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় আদালতে হাজির হতে অনিচ্ছা প্রকাশ করেন খালেদা জিয়া।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী ফৌজদারি আইনের ৫৪০ ‘এ’ ধারায় আসামির অনুপস্থিতিতেই আদালতের কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার আর্জি জানালে বিচারক শুনানি শেষে আদেশের এই দিন ঠিক করে দেন।

আসামিপক্ষের আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া, মাসুদ আহমেদ তালুকদার ও আমিনুল ইসলাম আদালতকে বলেন, খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচার করা যাবে না। তিনি যেহেতু অসুস্থ, আদালতে না আসা পর্যন্ত বিচারকাজ চালানো যাবে না।

এদিকে দুদকের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, কোনো আসামি যদি আদালতে আসতে অনিচ্ছুক হন, তাহলে আদালত তাকে ছাড়াই মামলার কার্যক্রম চালাতে পারবেন। আদালত উভয়পক্ষকে শুনে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর এ বিষয়ে আদেশের জন্য দিন ধার্য করেন।

এছাড়া খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা জানতে কারাগারে তার সঙ্গে দেখা করার যে আবেদন তার আইনজীবীরা করেছিলেন, সে বিষয়ে কারাবিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

খালেদা জিয়া বুধবার আদালতে হাজির না হলে তার অনুপস্থিতিতে এ মামলার বিচারকাজ চলবে কি-না সে বিষয়ে শুনানির জন্য বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেছিলেন বিচারক।

জিয়া অরফানেজ দুর্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়া গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ঢাকার পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন।

‘এই গণমাধ্যমে প্রকাশিত কোন সংবাদ বা তথ্য কপি/পেষ্ট করে প্রকাশ করা কপিরাইট আইনে অবৈধ এবং দন্ডনীয় অপরাধ।’